আজ শুক্রবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ২৫ মে ২০১৮ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম: মিসরে মসজিদে নিহত ২৩০ সমবেদনায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট!       কুষ্টিয়ায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১, আহত-১৫       এস এ পরিবহনের গাড়িতে আগুন ৪৫ লাখ টাকার মালামাল ভস্মিভুত       শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে দেড় বছরেও উদ্বোধন হয়নি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন       ৯ রানের জয় পেলো খুলনা       শপথ নিলেন জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট এমারসন নানগাগবা       প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রমাণ করে গুমের সঙ্গে সরকার জড়িত : মির্জা ফখরুল      
 / ডেসটিনি সংবাদ / ঈদ উৎসব থেকে এবারো ডেসটিনির ৪৫ লাখ ক্রেতা-পরিবেশক ও বিনিয়োগকারী বঞ্চিত
শেখ মোসলেহ উদ্দিন বাদশা, খুলনা
Published : Thursday, 22 June, 2017 at 9:53 PM, Count : 596
ঈদ উৎসব থেকে এবারো ডেসটিনির ৪৫ লাখ ক্রেতা-পরিবেশক ও বিনিয়োগকারী বঞ্চিতডেসটিনি বন্দি গত ৬০ মাস যাবৎ। অথচ যাদের টাকায় ডেসটিনি প্রতিষ্ঠিত সেইসব ক্রেতা পরিবেশক ও বিনিয়োগকারীর কোনো অভিযোগ নেই কোম্পানির চেয়ারম্যান ও এমডির বিরুদ্ধে। মানবিকতা বা মানবাধিকার বঞ্চিত ৪৫ লাখ মানুষের পক্ষে কথা বলার যেন কেউ নেই। শত কষ্টের মধ্যে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। বারবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং মাননীয় প্রধান বিচারপতির নিকট দাবি জানাচ্ছেন আমরা ডেসটিনির দ্বারা প্রতারিত নই। আমাদের প্রাণের কোম্পানিসহ বিনাবিচারে ৫ বছর জেলে বন্দি চেয়ারম্যান ও এমডি  স্যারকে মুক্তি দিন।

অন্যদিকে ডেসটিনির কার্যক্রম বন্ধ করে রাখায় এর সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত লাখ লাখ মানুষ মানবেতর জীবনযাপন করছে। ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত মানুষগুলোর মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। সাংবিধানিক অধিকার থেকে গত ৫ বছর বঞ্চিত  ডেসটিনির ৪৫ লাখ পরিবার। সব মিলিয়ে এবারও ১২তম ঈদের আনন্দ উৎসব ভাগ্যে মিলল না ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর। তারা আশা করেছিলেন এবারের ঈদ তারা চেয়ারম্যান ও এমডিকে সাথে নিয়ে উপভোগ করবেন। কিন্তু মহামান্য সুপ্রিকোর্টের আপিল বিভাগে মামলার নিষ্পত্তি না হওয়ায় সেই আশা পূরণ হলো না ডেসটিনি পরিবারের  ডিস্ট্রিবিউটরদের। তবুও তারা ন্যায় বিচারের প্রতীক্ষায় আছেন, মাননীয় প্রধান বিচারপতির সমন্বয়ে গঠিত আপিল বিভাগের বিজ্ঞ বিচারিক প্যানেলের একটি রায়ের অপেক্ষায়। ডেসটিনির ৪৫ লাখ মানুষের এই ধের্য বারবার প্রমাণ করেছে ডেসটিনি হলো আদর্শ একটি প্রতিষ্ঠান। তথ্যানুন্ধানে আরো জানা যায়, সকল ধর্ম-বর্ণ মানুষের সমন্বয়ে বাংলাদেশে সর্ববৃহৎ এমএলএম কোম্পানি ডেসটিনি-২০০০ লিঃ। ৪৫ লাখ পরিবারের সাথে জড়িত দেশের প্রায় ৩ কোটি মানুষ। গত ৬০ মাস ডেসটিনির কার্যক্রম বন্ধ থাকায় ঐসব পরিবারের মাঝে চলছে নিদারুণ দারিদ্র্য। ঈদ মানে খুশি এ কথা ভুলে গেছে তারা। গত ১১টি ঈদের আনন্দ উৎসব থেকে বঞ্চিত। এবারও ১২তম ঈদের আনন্দ উৎসব তাদের ভাগ্যে মিলছে না। একইভাবে হিন্দু ধর্মাবলম্বীসহ অন্যান্য ধর্মের লাখ লাখ মানুষ জড়িত ডেসটিনির সাথে। তারাও তাদের নানান উৎসব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ।
অথচ ডেসটিনির  ওপর সরাসরি নির্ভরশীল ১৭ লক্ষ ডিস্ট্রিবিউটরসহ ডেসটিনি গ্রুপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত প্রায় ৩ হাজার কর্মকর্তা ও কর্মচারীর পরিবার। জীবনজীবিকার তাগিদে তারা গত ৫ বছর যাবৎ সভা সমাবেশ, মানববন্ধন,  স্মারকলিপি প্রদানপূর্বক সরকারের সর্বমহলসহ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট মানবিক দাবি জানাচ্ছেন মুক্তি দিন ডেসটিনির শীর্ষ দুই কর্মকর্তার।

এ ব্যাপারে ডেসটিনির বিভিন্ন পর্যায়ের ডিস্ট্রিবিউটরদের সাথে কথা বললে তারা এইভাবে তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন, খুলনার ডিস্ট্রিবিউটর পিএসডি ওমর ফারুক ও জিল্লুর রহমান বলেন, ঈদের উৎসব ভুলে গেছি। আমরা ডেসটিনির বিনিয়োগকারী। ডেসটিনির বিরুদ্ধে  আমাদের কোনো অভিযোগ নেই। অথচ কেন বা কাদের স্বার্থে আমরা ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছি?

বিনিয়োগকারী যশোরের মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, ডেসটিনিতে আমার বিনিয়োগ আছে কয়েক লাখ টাকা। আমরা সরকারের কাছে কোনো অভিযোগ করিনি।
বিনিয়োগকারী সন্দিপ কর্মকার  বলেন, আমার টাকা ডেসটিনিতে নিরাপদ ছিল এবং আছে। অথচ ডেসটিনির কার্যক্রম বন্ধ হবার পর থেকে আমিসহ আমার এলাকার বহু পরিবারে চলছে মানবেতর জীবনযাপন। তিনি আরো বলেন, ২০০৪ সালে আমি ডেসটিনি আসার পর ভালো চলছিল আমার সংসার জীবন। ২০১২ সালে ডেসটিনি বন্ধ হবার পর থেকে কি অবস্থায় আছি তা বলে বুঝাতে পারবো না। মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষ যেমনই তাদের ঈদ আনন্দ উৎসব থেকে আজ বঞ্চিত, ঠিক তেমনই আমরা হিন্দু সম্প্রদায়ের লাখ লাখ মানুষ পূজা পার্বণসহ বিভিন্ন উৎসব থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। অথচ দেখুন ডেসটিনির বিরুদ্ধে আমরা দেশের সরকার বা প্রচলিত আদালতে কোনো অভিযোগ করিনি।

ডিস্ট্রিবিউটর মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ডেসটিনির বিরুদ্ধে ডিস্ট্রিবিউটরদের কোনো অভিযোগ নেই। অথচ ডেসটিনির কার্যক্রম বন্ধ করে রাখায় দেশের লাখ লাখ যুবসমাজ আজ বেকার। তারা বিপদগ্রস্ত হয়ে জড়িয়ে পড়ছে জঙ্গি তৎপরতাসহ বিভিন্ন অপরাধ জগতে। বিপথগামী সন্তানকে ফিরাতে পারছে না তাদের অভিভাবকরা। রাষ্ট্রের জন্য এরা এখন হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি আরো বলেন, সম্প্রতি সারাদেশে ডেসটিনি মুক্তির মানববন্ধন প্রমাণ করেছে, ডেসটিনি তথা আটক কোম্পানির এমডি ও চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ডেসটিনির ৪৫ লাখ মানুষের কোনো অভিযোগ নেই। অন্যদিকে ভুক্তভোগী ডেসটিনির লাখ লাখ ক্রেতা পরিবেশক ও বিনিয়োগকারীর দাবি অনতিবিলম্বে মুক্তি দেয়া হোক আটক চেয়ারম্যান ও এমডিকে। তারা এ ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতির জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।



দৈনিক ডেসটিনি’র অনলাইনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162