আজ সোমবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ২৮ মে ২০১৮ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম: মিসরে মসজিদে নিহত ২৩০ সমবেদনায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট!       কুষ্টিয়ায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১, আহত-১৫       এস এ পরিবহনের গাড়িতে আগুন ৪৫ লাখ টাকার মালামাল ভস্মিভুত       শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে দেড় বছরেও উদ্বোধন হয়নি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন       ৯ রানের জয় পেলো খুলনা       শপথ নিলেন জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট এমারসন নানগাগবা       প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রমাণ করে গুমের সঙ্গে সরকার জড়িত : মির্জা ফখরুল      
লবঙ্গর যত ঔষধিগুণলবঙ্গ একটি পরিচিত মসলা। এর রয়েছে প্রচুর ঔষধিগুণ। হজম এবং শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যায় শত-শত বছর ধরে লবঙ্গ একটি কার্যকর ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এতে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন এ, সি, কে এবং বি কমপ্লেক্স। ম্যাঙ্গানিজ, লৌহ, সেলেনিয়াম, পটাসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়ামের মতো খনিজ পদার্থও রয়েছে এতে যা মানবদেহের জন্য অত্যন্ত উপকারী।
ডালিম বা বেদানার পুষ্টিগুণডালিম বা বেদানা মোটামুটি সারাবছরই পাওয়া যায়। হিন্দি, উর্দু, ফার্সি ও পশতু ভাষায় একে আনার বলা হয়। বেদানা গাছ গুল্ম জাতীয়, ৫-৮ মিটার পর্যন্ত লম্বা হয়। পাকা ফল দেখতে লাল রঙের হয় । ফলের খোসার ভিতরে স্ফটিকের মত লাল রঙের দানা দানা থাকে । সেগুলোই খেতে হয়। এর আদি নিবাস
কখন পেঁপে খাওয়া ক্ষতিকর?পেপে অত্যন্ত পুষ্টিকর হলেও এর বীজ ও শেকড় গর্ভপাত ঘটাতে পারে। কাঁচাপেঁপে জরায়ু সংকুচিত করে ফেলে। পাকাপেঁপেতে এই ঝুঁকি কিছুটা কম। তবে গর্ভবতী হলে পেঁপে এড়িয়ে চলাই ভালো।পেঁপে অতিরিক্ত খেলে খাদ্যনালীর উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। দিনে বেশি পেঁপে খাওয়া উচিত নয়। পেঁপে পাতায় থাকা ‘পাপাইন’ নামক উপাদান গর্ভের সন্তানের জন্য
নারকেল তেল খাওয়া ক্ষতিকর! নারকেল খাওয়া যে উপকারি তা ছোটবেলা থেকেই শুনে আসছি আমরা। আমেরিকার একদল বিজ্ঞানী এ বার এই প্রচলিত ধারণাটাকেই ভুল বলে দাবি করলেন। বিজ্ঞানীদের দাবি, উপকারি তো নয়ই, উল্টে বেশি পরিমাণে খাওয়া শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক। সম্প্রতি আমেরিকার হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের (এএইচএ) এক দল বিজ্ঞানী স্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং মানুষের শরীরে তার প্রভাব নিয়ে গবেষণা করেন। সেখানেই উঠে এসেছে
রাত ১০টার পর খাবার খেয়েছেন কি মরেছেন!দেরি করে ঘুমোন? ডিনারও লেট নাইটে? ভুল করছেন। যত দেরি করে খাবেন, তত বিপদ। দেরি করে ডিনারে বারোটা বাজবে হার্টের। বাড়বে স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা। ওবেসিটি, ডায়াবেটিসের আশঙ্কা। এত্ত খাবার ! তাও আবার রাতে ! ঘড়ির কাঁটা ১০টা ছোঁয়ার পর রাতের খাবার খেয়েছেন কি মরেছেন। রাতের খাবারের আদর্শ সময় ১০টা। তার পরে ডিনার করলেই বিপদ।স্ট্রোক,
হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে বাজারে আসছে ভ্যাকসিনমানুষের রক্তে কোলেস্টেরল মাত্রা বেশি হলে সেটি হৃদরোগের ঝুঁকি তৈরি করে। রক্তে কোরেস্টরেলের মাত্রা কমানোর জন্য কিংবা নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য অনেকেই ডাক্তারের পরামর্শে নিয়মিত ওষুধ সেবন করেন। কিন্তু ভবিষ্যতে হয়তো প্রতিদিন ওষুধ সেবন করত হবে না। অষ্ট্রিয়ার ভিয়েনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলছেন, তারা এমন একটি টিকা আবিষ্কারের চেষ্টা করছেন যেটি রক্তে কোলেস্টেরল মাত্রা কমাতে সাহায্য করবে। ইতোমধ্যে
খালিপেটে বেশিক্ষণ থাকার কারনে বাড়চ্ছে রক্তে সুগার খিদে না পেলে মুখে কিছু তুলছেন না? ভাবছেন খিদে নেই, খাব কেন? ভুল করছেন। খালিপেটে বেশিক্ষণ আপনার রক্তে সুগার বাড়াচ্ছে। দিনে ৪বার খাবার মাস্ট। ৫ ঘণ্টার ব্যবধানে খেতে না পারলে শরীরের দফারফা। ডায়াবেটিস, ওবেসিটি জাঁকিয়ে বসবে শরীরে। ঠিক এভাবেই ছুটছে আধুনিক জীবন। ট্রাম, বাস, রাস্তা। ছুটছে মানুষ। নাওয়া খাওয়ার সময় নেই। কাজের ব্যস্ততায় ব্রেকফাস্ট আউট। অফিসেও
ইফতারে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দূর করবে লেবু–আদা শরবতগ্রীষ্মের শুরুতেই রোজা পড়ায় এবার রোজার সময়সীমা বেশ দীর্ঘ। তাই অনেকের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই দীর্ঘ সময় রোজা রাখার পর ক্লান্তি দূর করতে ইফতারে এক গ্লাস ঠাণ্ডা শরবত না হলেই নয়।তাই এবার ইফতারের প্রথম দিনই জেনে নিন লেবু–আদা শরবতউপকরণলেবু ২টিআদার রস ২ টেবিল চামচপুদিনা পাতা কুচি ২ টেবিল
সারাদেশে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘট চলছে চিকিৎসকদেরবিভিন্ন সময় ডাক্তারদের ওপর হামলার প্রতিবাদ ও নিরাপদ কর্মস্থলের দাবিতে সারাদেশে সকাল ৬টা থেকে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘট পালন করছেন চিকিৎসকরা।   বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন- বিএমএ'র এ ঘর্মঘটে সারাদেশের হাসপাতাল ও ক্লিনিকসমূহে বন্ধ রয়েছে প্রাইভেট প্র্যাকটিস। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা। সবচেয়ে বেশি ভোগান্তি পোহাচ্ছেন দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে রাজধানীতে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা। তাদের অভিযোগ
আজ বিশ্ব রক্তদাতা দিবসরক্তদান জীবন দান। কথাটার সঙ্গে আমরা সকলেই পরিচিত। অথচ রক্তদানের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সচেতনতা, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার মানসিকতা এখনও আমাদের মধ্যে গড়ে ওঠেনি সে ভাবে। প্রতি দিন বিশ্বে রক্তের অভাবে বহু মানুষের প্রাণ গেলেও সুস্থ মানুষেরা অনেকেই রক্তদান সম্পর্কে ভুল ধারণা, ইতস্তত ভাব কাটিয়ে উঠতে পারেননি। রক্তদান সম্পর্কে সচেতনতা গড়ে তুলতে প্রতি বছর ১৪ জুন
প্রকাশক ও সম্পাদক : মোহাম্মদ রফিকুল আমীন।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মিয়া বাবর হোসেন।
© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডেসটিনি.কম
আলী’স সেন্টার, ৪০ বিজয়নগর ঢাকা-১০০০।
বিজ্ঞাপন : ০১৫৩৬১৭০০২৪, ৭১৭০২৮০
email: ddaddtoday@gmail.com, ওয়েবসাইট : www.dainik-destiny.com
ই-মেইল : destinyout@yahoo.com, অনলাইন নিউজ : destinyonline24@gmail.com
Destiny Online : +8801719 472 162